ঐক্যফ্রন্টকে ‘শুভেচ্ছা বিনিময়ে’ আমন্ত্রণ প্রধানমন্ত্রীর

‘সংলাপ’ নিয়ে নানামুখী আলোচনার মধ্যে আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে ‘শুভেচ্ছা বিনিময় ও চা-চক্রে’র আমন্ত্রণ পেয়েছে বিএনপি-গণফোরামসহ কয়েকটি দলের সমন্বয়ে গঠিত জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। 

আগামী ২ ফেব্রুয়ারি (শনিবার) বিকেলে তাদের গণভবনে এ আমন্ত্রণ জানিয়েছেন শেখ হাসিনা। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতা ও গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসীন মন্টু সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন। 

এ বিষয়ে গণফোরামের প্রশিক্ষণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম পথিক বাংলানিউজকে জানান, ‘গণভবন থেকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টকে আমন্ত্রণের একটি চিঠি এসেছে। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন, বিএনপি মহাসচিব ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ ফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির সব সদস্যের নামে আলাদা আলাদা চিঠি দেওয়া হয়েছে।’

শনিবার (২৬ জানুয়ারি) সকাল ১১টায় দাওয়াতকার্ডগুলো মোটরসাইকেলযোগে গণভবনের দুই ব্যক্তি আরামবাগের ইডেন গার্ডেনে গণফোরামের প্রধান কার্যালয়ে পৌঁছে দিয়ে গেছেন। তাদের নাম জিজ্ঞাসা করা হয়নি জানিয়ে পথিক বলেন, গণফোরাম অফিসের স্টাফ হারুন এ চিঠি গ্রহণ করেন। এ সময় আমিও উপস্থিত ছিলাম। 

গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী বরাবর দেওয়া চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ০২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯/২০ মাঘ, ১৪২৫ বিকেল সাড়ে ৩টায় গণভবনে শুভেচ্ছা বিনিময় ও চা-চক্রে আপনাকে সাদর আমন্ত্রণ জানাচ্ছেন।’

এ বিষয়ে বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান বাংলানিউজের কাছে দাবি করেন, সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা পর্যন্ত এ বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না। 

গত ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২৮৮ আসনে জয় পায় আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোট। এ নির্বাচনে মাত্র আটটি আসনে জিততে পারে ঐক্যফ্রন্ট। নির্বাচনের শুরু থেকেই কারচুপি-জালিয়াতির অভিযোগ তুলে আসছেন ঐক্যফ্রন্টের নেতারা। নির্বাচনের পর রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে ইতিবাচকতার স্বার্থে সব রাজনৈতিক পক্ষকে সংলাপে বসার আহ্বান জানায় জাতিসংঘ।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published.

×

সারা বাংলা সারা দিন-এর সাথেই থাকুন!