কুষ্টিয়ায় ইভটিজারকে ভ্রাম্যমান আদালতের দন্ড

বাদশা আলমগীর, কুষ্টিয়া থেকে: কুষ্টিয়া সদর উপজেলা ইবি থানাধীন হরিনারায়ণপুর বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণীর এক কিশোরীকে ইভটিজিংয়ের দায়ে দুই মাসের কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভুমি) মুহাম্মদ মুছাব্বেরুল ইসলাম। অষ্টম শ্রেণীর ওই ছাত্রী জানান, ইবি থানার অফিসার ইনচার্জ রতন শেখ প্রায়ই আমাদের স্কুলে এসে মাদক ও বাল্যবিবাহ রোধে সচেতন করে থাকেন। সে সময় তিনি তার নিজের মোবাইল নাম্বার সকল ছাত্রীর কাছে দেন। আজ সকালে একটি ছেলে আমাকে ইভটিজিং করছিল। আমি সঙ্গে সঙ্গে ইবি থানার ওসি স্যারকে বিষয়টি জানায়। ওসি স্যার দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে ইভটিজার সুজন কে আটক করে। এরপর ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ইভটিজার সুজনের বিচার করা হয়।

অভিযুক্ত সুজন (২৪) ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপা থানার শ্রীপুর গ্রামের মৃত আদালত মোল্লার ছেলে। এলাকাবাসী জানায় ইভটিজিং কারী সুজনকে প্রায় সময়ে স্কুলগামী ছাত্রীদের বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করতে ও বিদ্যালয়ের সামনে ঘুরতে দেখা যেত। ইবি থানার অফিসার ইনচার্জ রতন শেখ জানান, কুষ্টিয়া পুলিশ সুপার এস.এম তানভীর আরাফাত পিপিএম (বার) স্যারের নির্দেশে আমি হরিনারায়নপুর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে মাদক ও বাল্যবিবাহ বন্ধের জন্য জনসচেতনতা মূলক বক্তব্য প্রদান করার সময় একটি মেয়ে আমাকে ফোনে ইভটিজিং এর বিষয়টি জানান। আমি দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে ইভটিজারকে আটক করি। ঘটনাস্থলেই নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভুমি) মুহাম্মদ মুছাব্বেরুল ইসলাম ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে সাজা প্রদান করেন।

Print Friendly, PDF & Email
×

সারা বাংলা সারা দিন-এর সাথেই থাকুন!