কুস্টিয়ার খাজানগরে হামলায় আহত শিক্ষার্থী হৃদয়ের মৃত্যু

বাদশা আলমগীর, কুষ্টিয়া থেকে: তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে হামলায় আহত মেহেদী হাসান হৃদয় নামের এক কিশোর ৮ দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর আজ শনিবার দুপুরে তার মৃত্যু হয়। হৃদয়ের মৃত্যুর খবরে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে ওপর দিকে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন মুহুর্তে বিক্ষিপ্ত এলাকাবাসী প্রতিপক্ষের উপর হামলা চালাতে পারে আশংকায় এলাকায় পুলিশি তহলল জোরদার করা হয়েছে ।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, গত ১ মার্চ কুষ্টিয়া সদর উপজেলার বটতৈল ইউনিয়নের  উত্তরপাড়ায় নির্মাণাধীন জিয়া দর্জির বাড়ির সামনে এলোপাথাড়িভাবে পিটিয়ে কে বা কারা হৃদয় ও জিহাদ কে গুরুতর আহত করে। পরে স্থানীয়রা ছুটে এসে হৃদয় ও জিহাদ কে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায় । সেখানে হৃদয়ের অবস্থার অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এ ঘটনায় পর হৃদয়ের চাচা আবুছ উদ্দিন বাদী হয়ে গত ৪ মার্চ কুষ্টিয়া মডেল থানায় রুবেল মোল্লাসহ ১৩ জনের নাম উল্লেখসহ আরও ১০/১২ জন অজ্ঞাতনামার নামে মামলা করেন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৮ দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর আজ শনিবার দুপুরে তার মৃত্যু হয় বলে নিশ্চিত করেছেন হৃদয় (১৭) এর চাচা আনোয়ার হোসেন। কুষ্টিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ নাসির উদ্দিন হৃদয়ের মৃত্যু নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে এবং বিশৃঙ্খলা ঠেকাতে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
×

সারা বাংলা সারা দিন-এর সাথেই থাকুন!