ভারতের পাইলটকে মুক্তি দেয়া হবে শুক্রবার

ভারতীয় বায়ুসেনার পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে ভারতে ফিরিয়ে দিতে সম্মত হয়েছে পাকিস্তান। পাক সংসদে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান জানালেন আগামীকাল শুক্রবার (২৯ফেব্রুয়ারি) মুক্তি দিয়ে দেওয়া হবে ওই পাইলটকে।

ভারতীয় বায়ুসেনার পাইলট অভিনন্দন বর্তমান
পাইলট অভিনন্দন বর্তমান

এসময় ইমরান খান বলেন, গতকালই আমি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ফোন করে বলতে চেয়েছিলাম আমরা শান্তি চাই। আমাদের কাছে একজন পাইলট আছেন। তাঁকে আমরা আগামীকাল মুক্তি দিয়ে দেব। শান্তি প্রক্রিয়া চালিয়ে নিয়ে যেতেই এই উদ্যোগ বলে ইমরান জানান। উইং কমান্ডার অভিনন্দনকে বন্দি করে পাকিস্তান। ভারতে স্ট্রাইক করার সময় তাঁকে আটক করে পাকিস্তান। তাঁকে বন্দি করার আগেই তিনি পাকিস্তানের একটি এফ-১৬ বিমানে গুলি চালান পাইলট।

এর আগে ভারত জানায়, পাকিস্তানের সঙ্গে কোনও সমঝোতা হবে না, আমরা পাইলটকে ফেরত চাই। সমঝোতা করার পক্রিয়া অভিপ্রায় না থাকায় কূটনৈতিক চ্যানেল দিয়েও বিষয়টিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা নেই। এর আগে পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূতকে এ সংক্রান্ত তথ্য তুলে দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি তাঁর মাধ্যমে ইসলামাবাদের কাছে দিল্লি ওই পাইলটকে দ্রুত ভারতে ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি করেছেন।

পুলওয়ামা হামলার পর থেকেই পাকিস্তানের উপর আন্তর্জাতিক চাপ বাড়ানোর চেষ্টা করছে ভারত। তারই অঙ্গ হিসেবে গতকাল পাক রাষ্ট্রদূতকে ডেকে পাঠায় ভারত। তাঁকে জানিয়ে দেওয়া হয় বায়ুসেনার পাইলটকে কেন যেন দ্রুত মুক্ত করা হয়। পাক বিদেশ মন্ত্রীও জানান বায়ু সেনার পাইলটকে মুক্তি দিলে যদি উত্তেজনা প্রশমিত হয় তাহলে পাকিস্তান সেটাও করতে চায়।

এদিকে আজ সকালে মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প জানান দু’ দেশের থেকেই কিছুটা সুসংবাদ পেয়েছি আমরা। প্রথম থেকেই আমেরিকা চায় দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা কমুক। এবার সেটা হবে বলে মনে হচ্ছে।

দশকেরব পর দশক ধরে যে বিবাদ চলছে তা মিটতে পারে বলে আমি আশা প্রকাশ করছি। এরই মধ্যে রাষ্ট্রসঙ্ঘেও চাপে পড়ে পাকিস্তান। পুলওয়ামা-সহ ভারতের মাটিতে একাধিক আঘাত হানা জইশ-ই- মহম্মদের মাথা মৌলানা মাসুদ আজাহারকে রাষ্ট্রসঙ্ঘ ঘোষিত জঙ্গি ঘোষণা করার জন্য নিরাপত্তা পরিষদে আবেদন করেছে আমেরিকা –সহ তিনটি দেশ।

উল্লেখ্য, গতকাল বুধবার ভারত ও পাকিস্তান উভয়েই দাবি করেছে, তারা বিমান হামলা চালিয়ে প্রতিপক্ষের যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করেছে। ভারতের দাবি, পাকিস্তানের যুদ্ধবিমানটি কাশ্মিরের পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত অংশে পড়েছে। অন্যদিকে পাকিস্তানের বক্তব্য, তারা ভারতের দুটি জঙ্গিবিমান ভূপাতিত করেছে যার মধ্যে একটি তাদের অংশে পড়েছে। বিধ্বস্ত বিমানের ছবি প্রকাশের পাশাপাশি এর পাইলটকেও আটক করেছে তারা। আটক পাইলটের ভিডিও প্রকাশ করেছে তারা যেখানে তিনি নিজের পরিচয় ও পাকিস্তানিরা তার সঙ্গে কেমন আচরণ করছে তার কথা বলেছেন।

Print Friendly, PDF & Email
×

সারা বাংলা সারা দিন-এর সাথেই থাকুন!