রাজনীতিতে অভিনেতা সেলিম

বাংলাদেশ টেলিভিশনে প্রচারিত জনপ্রিয় ধারাবাহিক নাটক ‘রূপনগর’। নাটকটির টিপু চরিত্রে অভিনয় করে দর্শকের মন জয় করে নিয়ে ছিলেন রফিকউল্লাহ সেলিম।
১৯৯১ সালে ‘বারো রকম মানুষ’ ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করার মাধ্যমে টেলিভিশন নাট্য শিল্পী হিসেবে যাত্রা শুরু করেন। এরপর ‘রূপনগর’ ও ‘সারাবেলা’ ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করেন। শতাধিক প্যাকেজ নাটকেও অভিনয় করেছেন তিনি। খান আতাউর রহমান পরিচালিত ‘এখনও অনেক রাত’ চলচ্চিত্রে সেলিম অভিনয় করেছেন। বর্তমানে বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের প্রশিক্ষণ সম্পাদক ও টেলিভিশন প্যাকেজ নির্মাতা ফোরামের কার্যনির্বাহী সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এবার রাজনীতির মাঠে নামছেন তিনি।

মুন্সীগঞ্জ জেলার গজারিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে লড়বেন সেলিম। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, তার বাবার শূন্যস্থান পূরণ করতেই নির্বাচন করছেন তিনি। তার বাবা কলিমউল্লাহ ছিলেন গজারিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান।

সেলিম জানান, স্বতন্ত্রপ্রার্থী হিসেবে আজ সোমবার মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে রফিকউল্লাহ সেলিম বলেন, ‘রাজনীতি করার ইচ্ছা কখনো ছিল না। যে কারণে কোনো রাজনৈতিক দলের সঙ্গেও জড়িত হইনি কখনো। বাবা এই উপজেলার চেয়ারম্যান ছিলেন। এই এলাকার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন সামাজিক উন্নয়নে তার ভূমিকা আছে। দুই বছর আগে বাবা মারা গেছেন। এলাকাবাসীর তাগিদেই মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছি। জনগণ সুযোগ দিলে বাবার মতো এলাকার মানুষের জন্য কাজ করতে চাই।’

বর্তমানে অভিনয়ে খুব একটা সরব নন সেলিম। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বাবা-মা দুজনই ১৫ দিনের ব্যবধানে মারা যান। হঠাৎ করে এমন ঘটনায় কিছুটা মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছিলাম। কয়েক মাস আগে সর্বশেষ বিটিভির একটি নাটকে কাজ করেছি।’

রফিকউল্লাহ সেলিম শিক্ষা জীবন শুরু সেন্ট ফ্রান্সিস জেভিয়ার্স হাই স্কুলে। ১৯৮৩ সালে ঢাকা কলেজিয়েট স্কুল থেকে এস. এস. সি পাশ করেন। ১৯৮৫ সালে তেজগাঁও কলেজ থেকে এইচ. এস. সি. পাশ করেন। এরপর জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে পরিসংখ্যানে বিষয়ে অনার্সে ভর্তি হন। পরবর্তীতে পারিবারিক কারণে অনার্স কোর্স শেষ করতে পারেননি তিনি। ১৯৯০ সালে প্রাইভেট বি. এ. পাশ করেন।

অভিনয় জীবনের শুরু হয় ১৯৮৫ সালে পথ নাটক ‘সাপের খেইল’ এ অভিনয়ের মাধ্যমে। এরপর ‘হায়েনার মুখ’, ‘আমরা দিওয়ানা’, ‘লীলা ও রাজাকারের কিসসা’ নাটকের ২২টি প্রদর্শনীতে অংশ নেন তিনি। ‘সাবধান ওরা আসছে’, ‘শ্যামলী কেবলই নীল হয়’, ‘৩৪ এর প্যারাসাইট’ মঞ্চ নাটকের শতাধিক প্রদর্শনীতে সেলিমের অভিনয় নাট্যামোদী মহলে ব্যাপক প্রশংসিত হয়।

Print Friendly, PDF & Email
×

সারা বাংলা সারা দিন-এর সাথেই থাকুন!