সিংড়ায় খেজুরগাছ পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছে কৃষকেরা

সামাউন আলী, সিংড়া (নাটোর)প্রতিনিধি: শীতের আগমনে গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্যবাহি খেজুর রস সংগ্রহের জন্য গাছগুলোর পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন সিংড়া উপজেলার ১২টি ইউনিয়নের গাছিরা। এখন হেমন্তকাল মাঠ থেকে আমন ধান কাটা মাড়াইয়ের কাজ চলছে। নতুন ধানের মৌ মৌ গন্ধ চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ছে। সেই সাথে এই মধু বৃক্ষে ও এসেছে রস।

খেজুর রস সংগ্রহ করার জন্য আগেই খেজুরগাছ ঝরার কাজ করে হাড়ি লাগানোর জন্য প্রস্তুত করতে হয়। তাইতো এখন খেজুরগাছের ডালপালা কেটে-ঝুরে ফেলে হাড়ি লাগানোর জন্য প্রস্তুত করার কাজ চলছে। হেমন্ত, শীত ও বসন্ত এ ঋতুতে খেজুরগাছ থেকে রস সংগ্রহ করা হয়ে থাকে। শীত শুরুর সাথে সাথে গাছিরা ইতোমধ্যেই খেজুরগাছ প্রস্তুত করে রস আহরণের কাজ শুরু করেছে।

খেজুরের রস ও খেজুর গুড় দিয়ে তৈরি বাংলার ঐতিহ্য পিঠা-পায়েস শীতের সময়ের অন্যতম আকর্ষণীয় খাবার। যদিও সেই সোনালী দিন আজ আর নেই। তবুও উপজেলার বিভিন্ন এলাকার গাছিরা খেজুরগাছ তৈরির কাজ শুরু করেছেন।

নাটোর জেলার সিংড়া উপজেলার শেরকোল  ইউনিয়নের ভাগনাগরকান্দী গ্রামে বাসিন্দা  সুঁকচাদ আলী জানান, সে ৫০টি খেজুরগাছ থেকে রস সংগ্রহ করে। এখন খেজুরগাছের ডালপালা কেটে-ঝুরে হাড়ি লাগানো হচ্ছে। প্রতিটি খেজুরগাছের ডালপালা কেটে-ঝুরে নিতে গাছ প্রতি ১০০ টাকা মজুরী দিতে হয়। তিনি জানান, আমি প্রায় দুই সপ্তাহ হলোশুরু করেছি খেজুর গাছ থেকে রস সংগ্রহ করা।

Print Friendly, PDF & Email