সেই নীলগাইয়ের মৃত্যু

সেই নীলগাইয়ের মৃত্যু
নীলগাই

বাংলাদেশে বিলুপ্ত প্রজাতির দু’টি নীলগাইয়ের মধ্যে একটি নীলগাই মারা গেছে। দিনাজপুরের রামসাগর জাতীয় উদ্যানের মিনি চিড়িয়াখানায় রাখা দুটি নীলগাইয়ের মধ্যে নারী নীলগাইটি শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় নেটের সঙ্গে ধাক্কা লেগে আহত হয়ে তাৎক্ষনিকভাবে মারা গেছে। এতে একদিকে ঘর বাঁধার স্বপ্ন ভঙ্গ হয়েছে বাংলাদেশে বিলুপ্ত প্রজাতির এই দুটি প্রাণীর। অন্যদিকে বিলুপ্ত প্রজাতির এই প্রাণীর বংশবৃদ্ধির স্বপ্ন ভঙ্গ হলো বন বিভাগের।

নারী নীলগাইটি মারা যাওয়ার কথা স্বীকার করে রামসাগর জাতীয় উদ্যানের তত্বাবধায়ক আব্দুস সালাম তুহিন জানান, ইতোমধ্যেই এ বিষয়ে তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে এবং ময়নাতদন্তের মাধ্যমে নারী নীলগাইটির মৃত্যুর আসল কারণ নিশ্চিত করা হবে।

আব্দুস সালাম তুহিন জানান, রামসাগর জাতীয় উদ্যানের মিনি চিড়িয়াখানায় শনিবার সন্ধ্যায় দুটি নীলগাই খেলা করছিল। এক পর্যায়ে নারী নীলগাইটি নেটের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ছিটকে শক্ত মাটিতে পড়ে যায়। এতে বুকে আঘাত পেয়ে তাৎক্ষনিকভাবে মারা যায় নারী নীলগাইটি। 

উল্লেখ্য, গত বছরের ৪ সেপ্টেম্বর ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার সীমান্তঘেষা একটি নদীতে ভারত থেকে আসা নারী নীলগাইটিকে উদ্ধার করা হয়। দেশে বিলুপ্তপ্রায় এই প্রাণীটিকে পরবর্তীতে দিনাজপুরের রামসাগর জাতীয় উদ্যানের মিনি চিড়িয়াখানায় রাখা হয়। সেই থেকেই টানা ৫ মাস ধরে একাকিত্ব সময় পার করছিল নারী নীলগাইটি। এরপর চলতি বছরের ২২ জানুয়ারি নওগাঁ জেলার মান্দা উপজেলার জোতবাজার এলাকায় ভারত থেকে আসা একটি পুরুষ নীলগাই উদ্ধার করা হয়। পরে এই পুরুষ নীলগাইটিকে রামসাগর জাতীয় উদ্যানের মিনি চিড়িয়াখানায় রাখা নারী নীলগাইটির কাছে নিয়ে আসা হয় বিলুপ্ত প্রজাতির এই প্রাণীর বংশ বিস্তারের জন্য। বনবিভাগ বিলুপ্ত প্রজাতির এই প্রাণীর বংশ বিস্তারের চেষ্টা চালালেও প্রায় দেড় মাস পুরুষ ও নীলগাইটি একসাথে থাকার পর শনিবার সন্ধ্যায় মারা গেলো নারী নীলগাইটি। ফলে বিলুপ্ত প্রজাতির এই প্রাণীর বংশ বিস্তারের স্বপ্ন ভঙ্গ হলো বন বিভাগের।

Print Friendly, PDF & Email
×

সারা বাংলা সারা দিন-এর সাথেই থাকুন!