সেলুনে সিরিয়াল নিয়ে দ্বন্দ্ব; এক নেতার হাতে কাঠ ব্যবসায়ী খুন

বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়া সদর উপজেলায় ছুরিকাঘাতে শাহেদ (৩৫) নামের এক কাঠ ব্যবসায়ী খুন হয়েছেন। শুক্রবার দুপুরে বগুড়া সদরের নুনগোলা ঈদগাহ মাঠ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, নিহত শাহেদ বগুড়া সদরের পূর্ব আশোকোলা গ্রামের তোজাম্মেল হোসেনের ছেলে। এ ঘটনায় যুবলীগ নেতা রুবেল হোসাইনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রুবেল হোসাইন নিশিন্দারা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি।

সূত্র জানায়, শুক্রবার দুপুরে স্থানীয় ন্যাংড়ার বাজারে সেলুনে চুল কাটার সিরিয়াল দেয়া নিয়ে দুই যুবকের মধ্যে ঝগড়া হয়। এদের মধ্যে এক যুবক যুবলীগ নেতা রুবেলকে ফোন করে ডেকে আনে। রুবেল ন্যাংড়ার বাজারে পৌঁছে সেলুনের কর্মচারীদের ওপর চড়াও হয়। এসময় শাহেদের ছোট ভাই জাফরুল রুবেলকে বাঁধা দেয়। এতে রুবেল ক্ষুদ্ধ হয়ে জাফরুলকে মারধর করে।

পরে জাফরুল বাড়িতে গিয়ে বড় ভাই শাহেদকে ঘটনাটি জানায়। শাহেদ ঘটনা শুনে ন্যাংড়ার বাজারের দিকে আসতে থাকে। পথিমধ্যে নুনগোলা ঈদগাহ মাঠের কাছে রুবেল ও তার সহযোগীদের সঙ্গে শাহেদের দেখা হলে ছোটভাই জাফরুলকে মারধরের কারণ জানতে চায়। এ নিয়ে দুইজনের মধ্যে তর্ক-বিতর্ক শুরু হয়।

এক পর্যায়ে রুবেল ও তার সহযোগীরা শাহেদের বুকে ও পিঠে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় আশেপাশের লোকজন শাহেদকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করান। পরে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুর ৩টার সময় শাহেদের মৃত্যু হয়।

বগুড়া সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শাহেদকে খুন করা হয়। ঘটনার পরই অভিযুক্ত রুবেলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত অনান্য আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

Print Friendly, PDF & Email
×

সারা বাংলা সারা দিন-এর সাথেই থাকুন!